সহীহ শামায়েলে তিরমিযী ১২. রাসূলুল্লাহ (ﷺ) এর আংটির বিবরণ (باب ما جاء في ذكر خاتم رسول الله ﷺ)

পরিচ্ছেদঃ

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর আংটিতে আবিসিনীয় পাথর বসানো ছিল:

৬৯. আনাস ইবনে মালিক (রাঃ) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম রূপার আংটি ব্যবহার করতেন। আর তাঁর আংটিতে আবিসিনীয় পাথর বসানো ছিল।[1]

حَدَّثَنَا قُتَيْبَةُ بْنُ سَعِيدٍ ، وَغَيْرُ وَاحِدٍ ، عَنْ عَبْدِ اللَّهِ بْنِ وَهْبٍ ، عَنْ يُونُسَ ، عَنِ ابْنِ شِهَابٍ ، عَنْ أَنَسِ بْنِ مَالِكٍ ، قَالَ : " كَانَ خَاتَمُ النَّبِيِّ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ مِنْ وَرِقٍ ، وَكَانَ فَصُّهُ حَبَشِيًّا " .

حدثنا قتيبة بن سعيد ، وغير واحد ، عن عبد الله بن وهب ، عن يونس ، عن ابن شهاب ، عن أنس بن مالك ، قال : " كان خاتم النبي صلى الله عليه وسلم من ورق ، وكان فصه حبشيا " .


Anas bin Maalik Radiyallahu 'Anhu says that the ring of Rasulullah Sallallahu 'Alayhi Wasallam was made of silver and the gem stone was from Abyssinia.

According to the majority of the 'ulama it is permissible to wear a ring made made of silver. The Hanafis say it is not permissible to wear a ring made of bronze. iron, steel etc. In the early stages, Sayyidina Rasulullah Sallallahu 'Alayhi Wasallam did not have a ring made, until it was known that the kings of Persia and other countries did not accept or take into consideration letters that had no seal (stamp) on them. He had begun sending letters to.the kings inviting thern to Islaam. A seal (stamp) was made in the sixth or seventh year hijri. The 'ulama give different opinions on the wearing of the ring. Some'ulama say that it is makruh for any person besides the king and judge to wear a ring. The research of the Hanafi 'ulama (may Allah Increase their number and accept their efforts) in this matter, according to the saying of 'Shaami' is, that it is sunnah for the kings, judges, trustees and those who need a seal. Besides them it is permissible for others, but better not to use it. The reason is evident that Sayyidina Rasulullah Sallallahu 'Alayhi Wasallam only made one when it became necessary, before he began sending letters to the kings. This will be mentioned in hadith number six in this chapter. Abu Daawud and others have stated that besides the kings, others are prohibited from wearing a ring. Since it has been proven that many Sahaabah Radiyallahu 'Anhum wore a ring in the presence of Sayyidina Rasulullah Sallallahu 'Alayhi Wasallam, and in other ahaadith that Sayyidina Rasulullah Sallallahu 'Alayhi Wasallam had permitted it, this prohibition will be taken as that which is contrary to a more meritorious and desired act.


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
সহীহ শামায়েলে তিরমিযী
১২. রাসূলুল্লাহ (ﷺ) এর আংটির বিবরণ (باب ما جاء في ذكر خاتم رسول الله ﷺ)

পরিচ্ছেদঃ

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর কাছে একটি রৌপ্যের আংটি ছিল :

৭০. ইবনে উমার (রাঃ) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম একটি রৌপ্যের আংটি তৈরি করেছিলেন। তিনি তা দ্বারা (চিঠিপত্রে) সীল মারতেন, তবে তিনি (সচরাচর) তা পরিধান করতেন না।[1]

حَدَّثَنَا قُتَيْبَةُ ، قَالَ : حَدَّثَنَا أَبُو عَوَانَةَ ، عَنْ أَبِي بِشْرٍ ، عَنْ نَافِعٍ ، عَنِ ابْنِ عُمَرَ ، أَنَّ النَّبِيَّ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ " اتَّخَذَ خَاتَمًا مِنْ فِضَّةٍ ، فَكَانَ يَخْتِمُ بِهِ وَلا يَلْبَسُهُ " .

حدثنا قتيبة ، قال : حدثنا أبو عوانة ، عن أبي بشر ، عن نافع ، عن ابن عمر ، أن النبي صلى الله عليه وسلم " اتخذ خاتما من فضة ، فكان يختم به ولا يلبسه " .


Hazrat Ibn Umar radiallahu anhu says that Rasulullah sallallahu alayhe wasallam had a ring made of silver. He used it as a seal (Stamp) on letters etc., but did not wear it.

Sayyidina Rasulullah sallallahu alayhe wasallam wore a ring as has been stated in the ahaadith. The ulama give a few explanations to this hadith. Some have explained that it meant that he did not wear it continuously. Some are of the opinion that Sayyidina Rasulullah sallallahu alayhe wasallam possessed two rings, one had the seal and was used to put a stamp on letters etc. and he did not wear this ring. The other ring was used for wearing. In the same manner, the 'ulama have given many other explanations. According to this humble servant the most accepted explanation is that he did not wear it always. It is reported in the hadith that Sayyidina Rasulullah sallallahu alayhe wasallam was once performing salaah, he was wearing a ring on the right hand. While performing salaah, his eyes fell on the ring. After that he stopped wearing the ring. In the ahaadith a similar incident is mentioned regarding a printed cloth. While in salaah his sight fell on it. Sayyidina Rasulullah sallallahu alayhe wasallam removed this cloth and wore another one. Since the ring was of importance it could not be discarded completely. Therefore he did not generally wear it. This is the nearest (most correct). It will be stated in the sixth hadith of the next chapter that the ring was mostly kept by Sayyidina Mu'ayqeeb radiallahu anhu.


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
সহীহ শামায়েলে তিরমিযী
১২. রাসূলুল্লাহ (ﷺ) এর আংটির বিবরণ (باب ما جاء في ذكر خاتم رسول الله ﷺ)

পরিচ্ছেদঃ

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সীল মারার জন্য আংটিটি তৈরি করেছিলেন:

৭১. আনাস ইবনে মালিক (রাঃ) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম যখন অনারব রাজা-বাদশাহদের কাছে দাওয়াতপত্র প্রেরণের সংকল্প (ইচ্ছা) করেন তখন তাঁকে জানিয়ে দেয়া হয় যে, তারা সীল ছাড়া চিঠি গ্রহণ করে না। তাই তিনি একটি আংটি তৈরি করান। তাঁর হাতের নিচে রাখা আংটিটির ঔজ্জ্বল্য যেন আজও আমার চোখের সামনে ভাসছে।[1]

حَدَّثَنَا إِسْحَاقُ بْنُ مَنْصُورٍ ، قَالَ : حَدَّثَنَا مُعَاذُ بْنُ هِشَامٍ ، قَالَ : حَدَّثَنِي أَبِي ، عَنْ قَتَادَةَ ، عَنْ أَنَسِ بْنِ مَالِكٍ ، قَالَ : لَمَّا أَرَادَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ أَنْ يَكْتُبَ إِلَى الْعَجَمِ قِيلَ لَهُ : إِنَّ الْعَجَمَ لا يَقْبَلُونَ إِلا كِتَابًا عَلَيْهِ خَاتَمٌ ، " فَاصْطَنَعَ خَاتَمًا , فَكَأَنِّي أَنْظُرُ إِلَى بَيَاضِهِ فِي كَفِّهِ " .

حدثنا إسحاق بن منصور ، قال : حدثنا معاذ بن هشام ، قال : حدثني أبي ، عن قتادة ، عن أنس بن مالك ، قال : لما أراد رسول الله صلى الله عليه وسلم أن يكتب إلى العجم قيل له : إن العجم لا يقبلون إلا كتابا عليه خاتم ، " فاصطنع خاتما , فكأني أنظر إلى بياضه في كفه " .


Anas radiallahu anhu relates: "When Rasulullah sallallahu alayhe wasallam intended to write letters to the kings of 'Ajam (non arabs), inviting them to Islam, the people said that they did not accept letters without a seal (stamp) on them. Rasulullah sallallahu alayhe wasallam therefore had a ring made, the whiteness of which is still before my eyes."

রাসূলুল্লাহ (সাঃ) প্রথমত কোন আংটি তৈরি করেননি। কিন্তু যখন অবগত হলেন বিভিন্ন রাজা-বাদশাহগণ সীল-মোহর ছাড়া চিঠিপত্রের মূল্যায়ন করেন না, তাই রাসূলুল্লাহ (সাঃ) দীনের দাওয়াত দিয়ে চিঠি প্রেরণের জন্য আংটি তৈরি করেন।

হাদীস থেকে প্রতিয়মান হয় যে, চিঠিপত্রের মাধ্যমে দীনের দাওয়াত দেয়াও সুন্নাত। সুলায়মান (আঃ) সর্বপ্রথম চিঠির মাধ্যমে সাবার রাণী বিলকীসকে দাওয়াত দিয়েছিলেন।


The last sentence shows that he remembers this incident well. By whiteness the silver in the ring is referred to.


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
সহীহ শামায়েলে তিরমিযী
১২. রাসূলুল্লাহ (ﷺ) এর আংটির বিবরণ (باب ما جاء في ذكر خاتم رسول الله ﷺ)

পরিচ্ছেদঃ

আংটিটিতে ‘মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ’ অংকিত ছিল:

৭২. আনাস ইবনে মালিক (রাঃ) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর আংটিতে ‘মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ’ অংকিত ছিল। ‘মুহাম্মাদ’ এক লাইনে, ‘রাসূল’ এক লাইনে এবং ‘আল্লাহ’ এক লাইনে।[1]

حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ يَحْيَى ، قَالَ : حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ عَبْدِ اللَّهِ الأَنْصَارِيِّ ، قَالَ : حَدَّثَنِي أَبِي ، عَنْ ثُمَامَةَ ، عَنْ أَنَسِ بْنِ مَالِكٍ ، قَالَ : " كَانَ نَقْشُ خَاتَمِ رَسُولِ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ : مُحَمَّدٌ سَطْرٌ ، وَرَسُولٌ سَطْرٌ ، وَاللَّهُ سَطْرٌ " .

حدثنا محمد بن يحيى ، قال : حدثنا محمد بن عبد الله الأنصاري ، قال : حدثني أبي ، عن ثمامة ، عن أنس بن مالك ، قال : " كان نقش خاتم رسول الله صلى الله عليه وسلم : محمد سطر ، ورسول سطر ، والله سطر " .


It is related from Hazrat Anas radiallahu anhu that the inscription engraved on the ring of Rasulullah sallallahu alayhe wasallam was 'Muhammad Rasullulah, of in the first line was engraved, in the second line 'Rasul, and in the third line 'Allah'.

Some 'ulama have written that 'Muhammad Rasulullah' was engraved in such a manner, that the word 'Allah' was engraved on the top. This stamp was round, and was read from the bottom. The muhaqqiqeen (research scholars) write that this is not proven from any hadith, but from the apparent words we find it was written thus:

Muhammad
Rasul Allah


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
সহীহ শামায়েলে তিরমিযী
১২. রাসূলুল্লাহ (ﷺ) এর আংটির বিবরণ (باب ما جاء في ذكر خاتم رسول الله ﷺ)

পরিচ্ছেদঃ

৭৩. আনাস ইবনে মালিক (রাঃ) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম পারস্য সম্রাট কিসরা, রোম সম্রাট কায়সার এবং আবিসিনীয় বাদশাহ নাজ্জাশীর নিকট (ইসলাম গ্রহণের দাওয়াত দিয়ে) চিঠি লেখার ইচ্ছে পোষণ করেন। তখন তাঁকে জানানো হলো যে, তারা সীল-মোহর ছাড়া চিঠি গ্রহণ করেন না। এরপর রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম একটি আংটি তৈরি করান, যার বৃত্তটি ছিল রৌপ্যের। আর তিনি ঐ আংটিতে ‘মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ’ অংকিত করান।[1]

حَدَّثَنَا نَصْرُ بْنُ عَلِيٍّ الْجَهْضَمِيُّ أَبُو عَمْرٍو ، قَالَ : حَدَّثَنَا نُوحُ بْنُ قَيْسٍ ، عَنْ خَالِدِ بْنِ قَيْسٍ ، عَنْ قَتَادَةَ ، عَنْ أَنَسِ بْنِ مَالِكٍ ، أَنَّ النَّبِيَّ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ " كَتَبَ إِلَى كِسْرَى وَقَيْصَرَ وَالنَّجَاشِيِّ ، فَقِيلَ لَهُ : إِنَّهُمْ لا يَقْبَلُونَ كِتَابًا , إِلا بِخَاتَمٍ , فَصَاغَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ , خَاتَمًا حَلْقَتُهُ فِضَّةٌ ، وَنُقِشَ فِيهِ : مُحَمَّدٌ رَسُولُ اللَّهِ " .

حدثنا نصر بن علي الجهضمي أبو عمرو ، قال : حدثنا نوح بن قيس ، عن خالد بن قيس ، عن قتادة ، عن أنس بن مالك ، أن النبي صلى الله عليه وسلم " كتب إلى كسرى وقيصر والنجاشي ، فقيل له : إنهم لا يقبلون كتابا , إلا بخاتم , فصاغ رسول الله صلى الله عليه وسلم , خاتما حلقته فضة ، ونقش فيه : محمد رسول الله " .


Anas Radiyallahu relates that: Rasulullah sallallahu alayhi wasallam made an intention to write letters to Kisra, Qaysur (Ceasar) and Najashi, inviting them to accept Islaam. The people said: '(O Rasulullah) those people do not accept letters without a stamp on it'. For this reason Rasulullah Sallallahu Alayhi Wasallam had a stamp made. The ring (loop) of which was silver,
and had 'Muhammad Rasulullah' engraved on it".

রাসূলুল্লাহ যেসব বাদশাহর নামে চিঠি পাঠিয়েছেন :

রাসূলুল্লাহ (সাঃ) যেসব রাজা-বাদশাহ ও শাসকদের নামে ইসলামের দাওয়াত দিয়ে চিঠি প্রেরণ করেন তাদের কয়েকজনের তালিকা নিমে দেয়া হলো:

. রোমের সম্রাট হিরাক্লিয়াস : সাহাবী দিহইয়া কালবী (রাঃ) তাঁর কাছে চিঠি নিয়ে যান। রাসূলুল্লাহ (সাঃ) এর নবুওয়াতের প্রতি তাঁর বিশ্বাস থাকার পরও তিনি ঈমান আনেননি। তবে রাসূলুল্লাহ (সাঃ) এর চিঠির কোন অবমাননাও করেননি।

. পারস্যের সম্রাট পারভেজ : আবদুল্লাহ ইবনে হুযাফা আস-সাহমী (রাঃ) তাঁর কাছে চিঠি নিয়ে যান। পাপী পারভেজ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) এর চিঠি ছিঁড়ে টুকরা টুকরা করে ফেলে। অতঃপর রাসূলুল্লাহ (সাঃ) এর বদ দু’আর ফলে তাঁর রাজ্যও ভেঙ্গে টুকরা টুকরা হয়ে যায়।

. আবিসিনিয়ার অধিপতি নাজ্জাশী : এ চিঠির বাহক সাহাবী আমর ইবনে উমাইয়া (রাঃ)। যে নাজ্জাশী হাবশায় মুসলিমদেরকে স্থান দিয়েছিলেন তাঁর নাম আমবাসা। ষষ্ঠ হিজরী সনে তিনি ইসলাম গ্রহণ করেন এবং নবম হিজরী সনে মারা যান। মদিনায় রাসূলুল্লাহ (সাঃ) তাঁর গায়েবানা জানাযা আদায় করেন।

. মিশরের রাজা মুকাওকিস : তাঁর কাছে চিঠি নিয়ে যান হাতিব ইবনে আবী বালতা’আ। তিনি ইসলাম কবুল করেননি। তবে রাসূলুল্লাহ (সাঃ) এর নিকট হাদিয়া প্রেরণ করেন।

. বাহরাইনের রাজা মুনযির ইবনে সাদী : আলা ইবনে হাযরাম (রাঃ) তাঁর কাছে চিঠি নিয়ে যান। তিনি ইসলাম কবুল করেন এবং ইসলামী খিলাফাতের অন্তর্ভুক্ত হয়ে যান।

৬. আম্মানের রাজা : সে সময় আম্মানে ছিল দু’জন বাদশাহ। রাসূলুল্লাহ (সাঃ) আমর ইবনে আস (রাঃ) এর মাধ্যমে তাদের কাছে চিঠি প্রেরণ করেন। চিঠি পেয়ে তারা উভয়েই ইসলাম গ্রহণ করেন


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
সহীহ শামায়েলে তিরমিযী
১২. রাসূলুল্লাহ (ﷺ) এর আংটির বিবরণ (باب ما جاء في ذكر خاتم رسول الله ﷺ)

পরিচ্ছেদঃ

আংটিটি পর্যায়ক্রমে খলীফাগণ ব্যবহার করেন এবং উসমান (রাঃ) এর হাত থেকে তা একটি কূপে পড়ে যায়:

৭৪. ইবনে উমার (রাঃ) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম একটি রূপার আংটি তৈরি করান। সর্বদা তা তাঁর হাতে থাকত। তারপর তা পালাক্রমে আবু বকর (রাঃ) উমার (রাঃ) এর হাতে আসে। এরপর উসমান (রাঃ) এর হাত থেকে (মু’আয়কিবের সাথে লেনদেনের সময়) তা আরীস নামক কূপে পড়ে যায়। তাতে ‘মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ’ অংকিত ছিল।[1]

حَدَّثَنَا إِسْحَاقُ بْنُ مَنْصُورٍ ، قَالَ : حَدَّثَنَا عَبْدُ اللَّهِ بْنُ نُمَيْرٍ ، قَالَ : حَدَّثَنَا عُبَيْدُ اللَّهِ بْنُ عُمَرَ ، عَنْ نَافِعٍ ، عَنِ ابْنِ عُمَرَ ، قَالَ : " اتَّخَذَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ , خَاتَمًا مِنْ وَرِقٍ ، فَكَانَ فِي يَدِهِ ثُمَّ كَانَ فِي يَدِ أَبِي بَكْرٍ ، وَيَدِ عُمَرَ ، ثُمَّ كَانَ فِي يَدِ عُثْمَانَ ، حَتَّى وَقَعَ فِي بِئْرِ أَرِيسٍ , نَقْشُهُ : مُحَمَّدٌ رَسُولُ اللَّهِ " .

حدثنا إسحاق بن منصور ، قال : حدثنا عبد الله بن نمير ، قال : حدثنا عبيد الله بن عمر ، عن نافع ، عن ابن عمر ، قال : " اتخذ رسول الله صلى الله عليه وسلم , خاتما من ورق ، فكان في يده ثم كان في يد أبي بكر ، ويد عمر ، ثم كان في يد عثمان ، حتى وقع في بئر أريس , نقشه : محمد رسول الله " .


Ibn 'Umar Radiyallahu 'Anhu says. "Rasulullah Sallallahu 'Alayhi Wasallam kept his ring in his mubaarak hands (possession). Then it was kept by Abubakr Radiyallahu 'Anhu, then by 'Umar Radiyallahu 'Anhu. Thereafter by 'Uthmaan Radiyallahu 'Anhu. In his ('Uthmaan Radiyallahu 'Anhu's) time it fell in the Well of 'Arees. The inscription on this ring was 'Muhammadur
Rasulullah"'.

এ কূপটি মসজিদে কুবার নিকটস্থ একটি খেজুর বাগানে অবস্থিত ছিল। সিরীয় ভাষাতে ‘আরীস’ অর্থ কৃষক। আরীস নামক একজন ইয়াহুদির নাম অনুপাতে ঐ কূপের নামকরণ করা হয়েছিল ‘বিরে আরীস’ বা আরীসের কূপ।


Bir 'Arees is a well near Masjid Quba. During the khilaafah of Sayyidina Uthrnaan Radiyallahu 'Anhu the ring remained with him for six years, then accidently it fell into the well. Sayyidina 'Uthmaan Radiyallahu 'Anhu ordered a thorough search of the well. For two days water of the well was pulled out, but it could not be found. The 'ulama write that from the time the ring fell in the well, mischief and revolt began, and increased in the later years of Sayyidina 'Uthmaan Radiyallahu 'Anhu's khilaafah. In this hadith Sayyidina Ibn 'Umar Radiyallahu 'Anhu says, Sayyidina Rasulullah Sallallahu 'Alayhi Wasallam kept the ring in his mubaarak hands, and in another hadith in this chapter he denies that Sayyidina Rasulullah Sallallahu'Alayhi Wasallam wore a ring. This has already been explained. A special answer to the apparent contradictions in this hadith is that the meaning of Sayyidina Rasuluilah Sallallahu 'Alayhi Wasallam kept the ring in his hands is, he kept it in his possession. It does not necessarily mean that he wore it. It is stated in the following chapter that the ring was kept by Sayyidina Mu'ayqeeb Radiyallahu 'Anhu.


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
সহীহ শামায়েলে তিরমিযী
১২. রাসূলুল্লাহ (ﷺ) এর আংটির বিবরণ (باب ما جاء في ذكر خاتم رسول الله ﷺ)
দেখানো হচ্ছেঃ থেকে ৬ পর্যন্ত, সর্বমোট ৬ টি রেকর্ডের মধ্য থেকে